আশরাফ সাগর (জবি): জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের শিক্ষক জনাব নাসির উদ্দিন আহমদের বিরুদ্ধে গুরতর অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় সিণ্ডিকেটে। জনাব নাসির উদ্দিন আহমদের বিরুদ্ধে অভিযোগ তিনি চীন থেকে প্রকাশিত একটি লিখা হুবহু কপি করেছেন এবং এটি ভিক্টোরিয়া ইউনির্ভাসিটিতে প্রকাশের জন্য গৃহিত হয়।

 

এ ব্যাপারে খোঁজ নিয়ে জানা যায় এ ধরণের কোনো লিখা ভিক্টোরিয়া ইউনিভর্সিটি থেকে প্রকাশিত হয়নি। ভিক্টোরিয়া ইউনিভার্সিটি সুত্রে প্রকাশ এমন একটি লিখা ভিক্টোরিয়া ইউনিভার্সিটিতে ইংরেজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক জনাব আকরামুজ্জামান জমা দিয়েছিলেন।

 

এ সংক্রান্ত স্বীকারোক্তি সম্বলিত একটি অডিও ক্যাসেট আমাদের কাছে রয়েছে। জনাব নাসির উদ্দিন আহমদ পরবর্তিতে উক্ত লিখায় তার নাম সংযুক্ত থাকায় লিখাটি প্রত্যাহারের আবেদন করেন এবং কতৃপক্ষ তার আবেদন গ্রহণ করে লিখাটি প্রত্যাহৃত হয়েছে মর্মে চিঠি প্রদান করে। অর্থাৎ যে লিখাটি নিয়ে জনাব নাসির উদ্দিন আহমদকে অভিযুক্ত করা হয়েছে এমন কোনো লিখার কোনো অস্তিত্বই নেই। জনাব নাসির উদ্দিন আহমদ তার বিরুদ্ধে সংঘবদ্ধ ষড়যন্ত্রের অভিযোগ তুলেন এবং বলেন তদন্তকারীরা কোনো তথ্য প্রমাণ আমলে না নিয়েই তার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ উত্থাপন করছেন এবং তাকে অভিযুক্ত করার প্রয়াস চালাচ্ছেন।

 

তিনি আরো বলেন বিভিন্ন আন্দোলনে শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়ানোর কারণে একটি মহল তাকে অপদস্ত করতে উঠেপড়ে লেগেছে।

এ ব্যাপারে জনাব আকরামুজ্জামানের কাছে জানতে চাইলে তিনি কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি

Spread the love